ল্যাপারোস্কোপিক সার্জারি


ল্যাপারোস্কোপিক সার্জারি হল মিনিমালি ইনভেসিভ, কী-হোল ডায়াগনোস্টিক প্রক্রিয়া যেখানে ওপেন সার্জারি ছাড়াই আপনার দেহের ভিতরের দেহযন্ত্র পরিদর্শন করা যায়। ছোট করে কেটে বা পোর্টের মাধ্যমে, শীর্ষভাগে একটি ছোট আলো ও হাই-ডেভিনিশন ক্যামেরা সহ একটি লম্বা, সরু নল দেহের ভিতরে ঢোকানো হয়, পেটের গহ্বরের ছবি নেওয়ার জন্য। তোলা ছবি অপারেটিং রুমের হাই-রেজোলিউশন মনিটরে পাঠানো হয়- যার সাহায্যে সার্জন চিরাচরিত ওপেন সার্জারির মত একই অপারেশন সম্পন্ন করতে পারেন, শুধু ছোট করে কাটতে হয়।

OUR STORY

Know About Us

Why Manipal?

মনিপাল হসপিটাল হল দিল্লীর সেরা ল্যাপারোস্কোপিক সার্জারি হসপিটাল যেখানে পেট ও পেলভিক এরিয়ার বিভিন্ন সাধারণ ও জটিল, উভয় সমস্যার ডায়াগনোস্টিক ও থেরাপিউটিক ল্যাপারোস্কোপিক পরিষেবা প্রদান করা হয়। দিল্লীর সেরা ল্যাপারোস্কোপিক সার্জনরা আমাদের এখানে আছেন যারা প্রচলিত ও উন্নত প্রযুক্তি যেমন রোবট সহায়তাযুক্ত প্রক্রিয়া, উভয় ক্ষেত্রেই পারদর্শীতা অর্জন করেছেন। অত্যাধুনিক ডায়াগনোস্টিক সরঞ্জাম ও দক্ষ স্বাস্থ্য সেবা কর্মীদের সাথে নিয়ে, আমরা আমাদের রোগীদের যন্ত্রণাহীন, আরামদায়ক, দাগহীন, কম ঝুঁকিপূর্ণ ও দ্রুত আরোগ্যদায়ী, মিনিমালি ইনভেসিভ সার্জারি প্রদান করি। উচ্চ সাফল্যহার সহ ল্যাপারোস্কোপিক সার্জারি সম্পাদনের পথপ্রদর্শক আমাদের শক্তিশালী ইন্টেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) দক্ষ ইন্টেন্সিভিনিস্ট ও নার্সিং কর্মীরা থাকেন।

Treatment & Procedures

ল্যাপারোস্কোপিক কোলেসিস্টেক্টমি

গলব্লাডার বাদ দেওয়া একটি সাধারণ প্রক্রিয়া যা ল্যাপারোস্কোপিক সার্জারির মাধ্যমে সবথেকে সহজে সম্পন্ন করা যায়। রোগের প্রকৃতি ও ল্যাপারোস্কোপিক সরঞ্জামের উপর নির্ভর করে 0.5-1 সেমির 4টি চেরাই করে কোলেসিস্টেক্টমি সম্পন্ন করা হয়। এরপর ল্যাপারোস্কোপিক সরঞ্জামের সাহায্যে সার্জন গলব্লাডারটিকে টেনে এনে ছোট চেরাইয়ের মধ্যে দিয়ে বের করে নেন। এই ছোট কাটা-ছেঁড়াগুলি…

Read More

ল্যাপারোস্কোপিক হার্নিয়া রিপেয়ার

ল্যাপারস্কোপিক হার্নিয়া রিপেয়ার একটি মিনিমানি ইনভেসিভ প্রক্রিয়া যা ব্যবহার করে একটি হার্নিয়া সারিয়ে তোলা হয়। অন্ত্রের মত একটি দেহযন্ত্রের ছোট অংশ প্রসারিত হয়ে পেট অস্বাভাবিক স্ফীত করে তোলে। হার্নিয়া রিপেয়ার করতে হয় যদি: o হার্নিয়ার জন্য যন্ত্রণা ও অস্বস্তিবোধ হয় o আপনার প্রতিদিনের কাজে বাধা সৃষ্টি করে। o আকারে বেড়ে ওঠে। o অন্ত্রে বাধা তৈরি হয় বা ফাঁস…

Read More

ল্যাপারোস্কোপিক অ্যাপেন্ডিক্টমি-…

ল্যাপারোস্কোপিক অ্যাপেন্ডিক্টমি- প্রদাহযুক্ত অ্যাপেন্ডিক্স বাদ দেওয়া অ্যাপেন্ডিক্স হল একটি সরু আঙুলের মত নলাকৃতি দেহযন্ত্র যা পেটের ডানদিকের নীচের অংশে থাকে এবং অন্ত্রের সাথে সংযুক্ত থাকে। এর মধ্যে ব্যাকটেরিয়া থাকে। অ্যাপেন্ডিক্স বাধাপ্রাপ্ত হলে, এটির প্রদাহ শুর হয় এবং তার ফলে অ্যাপেন্ডিসাইটিস দেখা দেয়। অ্যাপেন্ডিক্স ফেটে গেলে ব্যাকটেরিয়া অন্যান্য…

Read More

ল্যাপারোস্কোপিক কোলেক্টমি ও স্প্লিনেক্টমি

কোলেক্টমি হল একটি প্রক্রিয়া যা ব্যবহার করে কোলন/ বৃহদন্ত্র বাদ দেওয়া হয়। কোলেক্টমি প্রক্রিয়ার বিভিন্ন প্রকার আছে, যথা: o টোটাল কোলেক্টমি (পুরো কোলন বাদ দেওয়া হয়) o পার্শিয়াল কোলেক্টমি (কোলন আংশিকভাবে বাদ দেওয়া হয়) o হেমিকোলেক্টমি (কোলনের ডান বা বাঁদিক বাদ দেওয়া হয়) o প্রক্টোকোলেক্টমি (কোলন ও রেক্টাম বাদ দেওয়া হয়) কোলেক্টমির লক্ষণগুলি হল: o আলসারেটিভ…

Read More

ল্যাপারোস্কোপিক কোলেসিস্টেক্টোমি-…

ল্যাপারোস্কোপিক কোলেসিস্টেক্টোমি- গলস্টোনের চিকিৎসার জন্য গলব্লাডার বাদ দেওয়া গলস্টোনের কারণে জটিলতা তৈরি হলে আপনার গলব্লাডার বাদ দেওয়ার প্রয়োজন হতে পারে। গলস্টোনের উপস্থিতিকে কোলেলিথিয়াসিস বলা হয়। বিলিয়ারি ডিস্কিনেশিয়া, যেক্ষেত্রে ত্রুটির কারণে গলব্লাদার থেকে পিত্ত পুরোপুরি বের হতে পারে না, প্যানক্রিয়াটাইটিস বা গলস্টোন সম্পর্কিত অগ্নাশয়ের প্রদাহ,…

Read More

Facilities & Services

অবস্টেট্রিক্স ও গাইনিকোলজি (ওবিজি)

স্ত্রী জননতন্ত্র ও মূত্রনালী সংক্রান্ত ল্যাপারোস্কোপিক প্রক্রিয়াগুলি হল:

  • ল্যাপ মায়োমেক্টমি (ফাইব্রয়েড বাদ দেওয়া): ল্যাপারোস্কোপিক মায়োমেক্টমি হল ন্যুনতম কাটা-ছেঁড়া করে সম্পন্ন করা উন্নত সার্জারি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে ইউটেরাইন ফাইব্রয়েড (লেওমিওমাস) বাদ দেওয়া হয়। ইউটেরাইন ফাইব্রয়েড হল জরায়ুর ক্যানসারহীন বর্ধিত কলা যা যেকোন সময় তৈরি হতে পারে তবে সাধারণত সন্তানধারণের সময় বেশী দেখা যায়। এই প্রক্রিয়ায় তলপেটে ছোট করে কেটে ল্যাপারোস্কোপি ব্যবহার করে উপসর্গ সৃষ্টিকারী ফাইব্রয়েড বাদ দেওয়া হয়।

  • টোটাল ল্যাপারোস্কোপিক হিস্টেরেক্টমি (টিএলএইচ)
  • স্টেরিলাইজেশন
  • ল্যাপারোস্কোপিক স্যাক্রাল কল্পোপেক্সি (পেলভিক প্রোল্যাপ্সের সংশোধন)
  • এন্ডোমেট্রোসিস
  • অ্যাডেনোমায়োসিস
  • জন্মগত অসঙ্গতি
  • ডিম্বাশয়ের টিউমার
  • টিউবাল রিকন্সট্রাকশন সার্জারি

এক্টোপিক প্রেগন্যান্সি: এক্টোপিক প্রেগন্যান্সি বা টিউবাল প্রেগন্যান্সি সাধারণত ফ্যালোপিয়ান টিউবে ঘটে এবং জরায়ুর মধ্যে নয়। ল্যাপারোস্কোপিক সার্জারির মধ্যে থাকে স্যালপিঙ্গোস্টমি ও স্যালপিঙ্গেক্টমি যা এক্টোপিক প্রেগন্যান্সির চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়।

  • জরায়ুর ক্যানসার
  • ডিম্বাশয়ের ক্যানসার
  • প্রজনন ক্ষমতা বৃদ্ধিকারী ক্যানসার
  • ইন্ট্রাইউটেরাইন মায়োমা
  • ইন্ট্রাইউটেরাইন সেপ্টাম
  • ইউটেরাইন সিনাচিয়া
  • টিউবাল ওপেনিং সার্জারি

পিডিয়াট্রিক্স

সদ্যজাত ও শিশুদের ক্ষেত্রে ল্যাপারোস্কোপিক প্রক্রিয়া নিরাপদভাবে সম্পন্ন করা যায়, যেখানে ছোট ও আরও সূক্ষ সরঞ্জাম ব্যবহার করে ন্যুনতম যন্ত্রণা ও দ্রুত আরোগ্য লাভ করা যায়। কয়েকটি প্রক্রিয়া হল:

 

  • অ্যাবডমিনাল সিস্ট একসাইজন
  • অ্যাকিউট অ্যাপেন্ডিসাইটিস
  • কনজেনিটাল ডায়াফ্র্যাগমেটিক হার্নিয়া রিপেয়ার: কনজেনিটাল ডায়াফ্র্যাগমেটিক হার্নিয়া (সিডিএইচ) ঘটে যখন মধ্যচ্ছদায় একটি ছিদ্র বা ফাঁক থাকার ফলে পাকস্থলী, ক্ষুদ্রান্ত্র এবং/অথবা লিভার বুকের দিকে সরে আসে, ফলে ফুসফুসের গঠন ব্যহত হয়। এটি একটি জীবন বিপন্নকারী সমস্যা এবং ল্যাপারোস্কোপিক সার্জারির মাধ্যমে মেরামত করা যায়।
  • ফান্ডোপ্লিকেশন
  • গলব্লাডার সার্জারি
  • হার্নিয়া রিপেয়ার
  • ল্যাপারোস্কোপিক পুল থ্রু
  • ম্যালরোটেশন

অর্কিডোপেক্সি: অর্কিডোপেক্সি হল একটি সার্জারি প্রক্রিয়া যা মিনিমালি ইনভেসিভ ল্যাপারোস্কোপিক পদ্ধতিতে সম্পন্ন করে অনবতীর্ণ অণ্ডকোষ, অণ্ডথলিতে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

  • পাইলোরিক স্টেনোসিস
  • ভিডিও-অ্যাসিস্টেড থোরাসোস্কোপিক সার্জারি (ভিএটিএস) দ্বারা এমপায়েমা চেস্ট, লাং বায়োপ্সি, চেস্ট টিউমার ও সিস্টের চিকিৎসা হয়
  • পিডিয়াট্রিক ইউরোলজি যেমন পায়েলোপ্লাস্টি, ইউরেটেরিক রিইমপ্ল্যান্টেশন

গ্যাস্ট্রোইন্টেস্টাইনাল (জিআই) সার্জারি

গ্যাস্ট্রোইন্টেস্টাইনাল ল্যাপারোস্কোপিক প্রক্রিয়া হল এক প্রকার উন্নত সার্জাই পদ্ধতি যেখানে পেটে (3-5 মিলিমিটারের) ছোট ছোট করে কেটে বা নাভিতে একটি বড় চেরাই করে (সিঙ্গল ইনসিজন ল্যপারোস্কোপিক সার্জারি)- সার্জন একটি ল্যাপারোস্কোপের সাহায্যে জিআই ট্র্যাক্ট সংক্রান্ত সমস্যার চিকিৎসা করেন। দিল্লীতে নিয়মিত সম্পন্ন হ্যাঁ ল্যাপারোস্কোপিক প্রক্রিয়াগুলি হল:

  • ল্যাপ কোলেসিস্টেক্টমি
  • পাথুরি রোগের জন্য পিত্তনালী পর্যবেক্ষন
  • ল্যাপ অ্যাপেন্ডিসেক্টমি
  • হার্নিয়া রিপেয়ার
  • ক্যানসারের জন্য কোলোরেক্টাল রিসেকশন: এই সার্জারির মাধ্যমে প্রাথমিক পর্যায়ের কোলন ক্যানসারের চিকিৎসা করা হয়। ল্যাপারোস্কোপিক সহায়তাযুক্ত কোলেক্টমি সম্পন্ন করে কোলন ও লিম্ফ নোডের ক্ষতিগ্রস্ত অংশ বাদ দেওয়া হয়।
  • লিভারের সিস্টিক অসুখ
  • স্মল বাওয়েল সার্জারি
  • অ্যাকালেশিয়া কার্ডিয়ার জন্য মায়োটমি: অ্যাকালেশিয়া কার্ডিয়া হল একটি বিরল সমস্যা যেখানে ইসোফ্যাগাস (খাদ্যনালী) থেকে পাকস্থলীতে খাবার যেতে সমস্যা হয়। মায়োটমি হল একটি সার্জারি প্রক্রিয়া যেখানে ইলোফ্যাগাল স্ফিঙ্কটার আলগা করার জন্য খাদ্যনালীর কিছু পেশী বিচ্ছিন্ন করা হয় যাতে খাবার সহজে পাকস্থলীতে নেমে যেতে পারে।
  • ল্যাপ স্প্লিনেক্টমি
  • সিস্টো-গ্যাস্ট্রোস্টমি
  • ল্যাপ বেরিয়াট্রিক সার্জারি

জেনারেল সার্জারি

ল্যাপারোস্কোপিক ও রোবটিক সার্জারি: ল্যাপারোস্কোপিক সার্জারিতে ল্যাপারোস্কোপ ব্যবহার করা হয়, অন্যদিকে রোবটিক সার্জারি একটি কম্পিউটার কনসোল ব্যবহার করে সম্পন্ন করা হয়। রোবটিক সার্জারির মধ্যে একটি ক্যামেরা আর্ম ও আরেকটি যান্ত্রিক আর্ম অন্তর্ভুক্ত থাকে যেখানে সার্জারির যন্ত্রপাতি সংযুক্ত থাকে। রোবট-অ্যাসিস্টেড সার্জারিতে একটি বিবর্ধিত 3D HD ভিউ, নিয়ন্ত্রণ ও নিপুণতা লাভ করা যায়। ছোট করে কাটার কারণে সংক্রমণের সম্ভাবনা ন্যুনতম হয়, ফলে দ্রুত আরোগ্যলাভ করা যায়। ল্যাপারোস্কোপিক বা রোবটিক পদ্ধতিতে সম্পন্ন হওয়া কিছু জেনারেল সার্জারি হল:

  • অ্যাপেন্ডিক্স
  • অ্যাকালেশিয়া কার্ডিয়া
  • গল ব্লাডার স্টোন
  • গ্যাস্ট্রোইন্টেস্টাইনাল ক্যানসার (ইসোফ্যাগাল, গ্যাস্ট্রিক, কোলোরেক্টাল, প্যানক্রিয়াটিক ইত্যাদি)
  • হায়াটাস হার্নিয়া: হায়াটাস হার্নিয়ার ক্ষেত্রে মধ্যচ্ছদার একটি ফাঁক (হায়াটাস) দিয়ে পাকস্থলী উপরে উঠে আসে।
  • সিম্পল টু কমপ্লেক্স হার্নিয়া: সিম্পল বা প্রাথমিক হার্নিয়ার ক্ষেত্রে পেটের একটি ফাঁক দিয়ে কোন দেহযন্ত্র বের হয়ে আসে। সিম্পল হার্নিয়া জটিল বা কমপ্লেক্স হার্নিয়ায় পরিণত হয় যখন পেটের ফাঁকটি বন্ধ করার একাধিক সার্জারিগত প্রক্রিয়া ব্যর্থ হয়ে যায়।
  • রেক্টাল প্রোল্যাপ্স
  • স্প্লিনেক্টমি
  • স্টেপলড হেমোরয়েডেক্টমি
  • ট্রমা ও এমার্জেন্সি কেয়ার

FAQ's

Yes. Laparoscopic surgeries are as safe as traditional open surgeries in children — with the advantage of tiny incisions and scars, minimal pain and speedy recovery. 

 

The most common conditions treated using laparoscopic procedures include gallbladder stones, appendectomy, cysts, or hernias etc.

Laparoscopic surgeries have many benefits, including:

  • Less post-operative pain

  • Less blood loss

  • Lower risk of infections

  • Shorter hospital stay

  • Speedy recovery

  • Smaller incision

  • No scarring

To know more, arrive at the laparoscopy surgery hospital in Dwarka, Delhi.

Obese patients have lost weight significantly through bariatric surgery. According to a study, bariatric surgery helps patient lose about 30-50% of their excess weight in the first 6 months, and 77% in 12 months after surgery at the best laparoscopy surgery hospital in Dwarka, Delhi.

Laparoscopy is usually done as an outpatient procedure. This means that you'll be able to go home on the same day as your surgery. It may be performed in a hospital or an outpatient surgical center. You'll likely be given general anesthesia for this type of surgery. Get the best treatment at the top laparoscopy surgery hospital in Dwarka, Delhi.

Blogs

Call Us